বাংলাদেশ সেন্টারে ঊর্মি -সোহেলের মন মাতানো সন্ধ্যা
এইদেশ ডেস্ক , বুধবার, জানুয়ারি ৩০, ২০১৩


গত ২৬ জানুয়ারি, শনিবার বাংলাদেশ সেন্টার মিলনায়তনে রোমান্টিক গানের শিল্পীজুটি ঊর্মি -সোহেল সমবেত দর্শকশ্রোতাদের হৃদয়ের গহীনকোনে চিনচিনে একটা বেদনাবোধই তৈরি করেননি। শ্রোতাদের নিজ আসন থেকে উঠিয়ে সুরের তালে তালে নাচিয়েও ছেড়েছেন। কখনো নাফিয়া ঊর্মি একা, কখনো শহিদুর রহমান সোহেল, বা যুগলভাবে গান পরিবেশন করেছেন তারা। সেই গানের সুরে শ্রোতারা আপ্লুত হয়েছেন,রোমাঞ্চিত হয়েছেন,হয়েছেন স্মৃতিভারাক্রান্তও। বাংলাদেশ সেন্টারের ’ তহবিল সংগ্রহে বিসিসিএস এর তৃতীয় আয়োজন ’সুরে সুরে তালে তালে’ তে এবার হাজির হন নাফিয়া উর্মি এবং শহিদুর রহমান সোহেল। কমিউনিটির বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যুগলভাবে রোমন্টিক গান পরিবেশন করে ইতিমধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পাওয়া এই দুই শিল্পী ’ঊর্মি-সোহেল’ জুটি হিসেবেই সাংস্কৃতিক অঙ্গনে সর্বাধিক পরিচিত। শিল্পী নাফিয়া উর্মী মাত্র ৪ বছর বয়েস থেকেই শিক্ষক আনন্দ চক্রবর্তীর কাছে গানে তালিম নেয়া শুরু করেন । ১৯৮৬ সালে জাতীয় শিশু কিশোর প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করেন তিনি। পরবর্তীতে তিনি বুলবুল একাডেমী ফর ফাইন আর্টস এর পরিচালক জনাব মহম্মদ রিজভী -এর কাছে গানে তালিম নেন। শিল্পী ১৯৮৯ সালে নতুন কুড়ি প্রতিযোগিতায় এবং বিভিন্ন অনুষ্ঠানে গানে অংশগ্রহন করেন। বর্তমানে ঊর্মী কানাডার বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ধরনের গান করে ঈর্ষনীয় জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন ।
ঊর্মির সঙ্গে জুটি বেধে মঞ্চ মাতানো শিল্পী শাহিদূর রহমান সোহেল ১০ বছর বয়সে ওস্তাদ ফায়েজ উদ্দিনের কাছে গানের তালিম নেন । বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তিনি হিন্দি , বাংলা বিভিন্ন ধরনের জনপ্রিয় গান পরিবেশন করেন ।
বাংলাদেশ সেন্টারে গান গাইতে এসে শিল্পীজুটি যেন তাদের অভিজ্ঞতার ঝুলি থেকে সেরাগুলোই উপহার দিতে সচেষ্ট ছিলেন। শিল্পীজুটি তাদের পরিবেশনা দিয়ে,গলার কাজ দিয়ে দর্শকশ্রোতাদের নির্মল আনন্দে ভরিয়ে দিতে পেরেছেন।